শুভ জন্মদিন প্রিয় কবি ও সাহিত্যিক সাযযাদ কাদির

আজ ১৪ এপ্রিল, কবি সাযযাদ কাদিরের জন্মদিন। শুধু কবিতা নয়, বাংলা গদ্যসাহিত্যেও তার অনেক অবদান রয়েছে। তিনি ষাটের দশকের একজন অন্যতম কবি, গবেষক, প্রাবন্ধিক  ও সাংবাদিক হিসেবে সুপরিচিত।

প্রাথমিক ও কর্মজীবন
১৯৪৭ সালের ১৪ এপ্রিল টাঙ্গাইল জেলার মিরের বেতকা গ্রামে নানাবাড়িতে জন্ম সাযযাদ কাদিরের। তার পৈতৃক নিবাস টাঙ্গাইল জেলার দেলদুয়ার উপজেলায়। তিনি ১৯৬২ সালে বিন্দুবাসিনী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। উচ্চ মাধ্যমিক পাস করার পর ভর্তি হন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। সেখান থেকে বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে ১৯৬৯ সালে অনার্স এবং ১৯৭০ সালে অর্জন করেন স্নাতকোত্তর ডিগ্রি।

১৯৭২ সালে শিক্ষক হিসাবে কর্মজীবন শুরু করেন সাযযাদ কাদির। তিনি প্রথম যোগ দেন করোটিয়া সা'দত কলেজ-এর বাংলা বিভাগের শিক্ষক হিসেবে। তবে মাত্র ৪ বছর পর কলেজের চাকুরি ছেড়ে সাপ্তাহিক বিচিত্রা পত্রিকায় যোগদানের মাধ্যমে সাংবাদিকতা পেশা শুরু করেন। ১৯৭৮ সালে এটি ছেড়ে চাকরি নেন রেডিও বেইজিংয়ে। এই কাজেও খুব বেশিদিন মন বসাতে পারেননি কবি। এটি ছেড়ে ১৯৮০ সালে যোগ দেন দৈনিক সংবাদ পত্রিকায়। এরপর কিছুদিন আগামী-তারকালোক  ও দিনকাল পত্রিকায় কাজ করেন। ১৯৯৫ সালে বাংলাদেশ প্রেস ইনিস্টিটিউটে যোগ দেন এবং বেশ কয়েক বছর সেখানে কাজ করেন। এরপর ২০০৪ সাল থেকে ২০১৪ পর্যন্ত কর্মরত ছিলেন দৈনিক মানবজমিন পত্রিকাযর যুগ্ম সম্পাদক হিসেবে। এটিই তার শেষ কর্মস্থল।

সাহিত্যে অবদান
সাযযাদ কাদির ছিলেন একজন বহুমাত্রিক লেখক। কবিতা, গল্প, উপন্যাস, নাটক, প্রবন্ধ-গবেষণা, শিশুতোষ, সম্পাদনা, সঙ্কলন, অনুবাদসহ সাহিত্যের প্রায় সব কটি শাখাতেই তার রয়েছে সাবলীল পদচারণা। তারপরও অনেকের কাছে কবি হিসাবেই বেশি পরিচিত তিনি। সবমিলিয়ে ৬০টির বেশি গ্রন্থ রচনা করেছেন সাযযাদ কাদির। এগুলোর মধ্যে- যথেচ্ছ ধ্রুপদ (১৯৭০), চন্দনে মৃগপদচিহ্ন (১৯৭৬), লাভ স্টোরি (১৯৭৭), রাজরূপসী, প্রেমপাঁচালী, হারেমের কাহিনী, অপর বেলায়, নারীঘটিত (২০১২, খেই (২০১২), বৃষ্টিবিলীন, অন্তর্জাল (২০০৮), রবীন্দ্রনাথ : শান্তিনিকেতন (২০১২), রবীন্দ্রনাথ : মানুষটি (২০১২) ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য।

দীর্ঘদিন সাহিত্যচর্চা করার পরও তিনি পাননি তেমন কোনও উল্লেখযোগ্য পুরস্কার। ১৯১৯ সালে সাযযাদ কাদিরকে পুরস্কৃত করে জাতীয় কবিতা পরিষদ। এছাড়া পশ্চিমবঙ্গের নাথ সাহিত্য ও কৃষ্টি কেন্দ্রিক সাহিত্যপত্রিকা ‘শৈবভারতী’র ৩৪তম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে তাকে শৈবভারতী পুরস্কার দেয়া হয়।

২০১৭ সালের ৬ এপ্রিল ৭০ বছর বয়সে রাজধানীরর এক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান কবি, সাহিত্যিক ও সাংবাদিক সাযযাদ কাদির।

আজ তার ৭৫তম জন্মদিবসে ওমেন্স নিউজের পক্ষ থেকে জানাই অশেষ শ্রদ্ধা ও অভিবাদন। শুভ জন্মদিন প্রিয় কবি ও সাহিত্যিক সাযযাদ কাদির।

ওমেন্স নিউজ ডেস্ক/