নূরুন্নাহার বেগমের কবিতা ‘আক্ষেপ’

আক্ষেপ

মেয়েটি ধর্ষিত হলো
ওর বয়স মাত্র ষোল ৷
কেবলি নাদুস নুদুস গায়ে গতরে বেড়ে উঠেছে ৷
ধর্ষক বত্রিশ বছরের , এক সন্তানের পিতা
নিস্তব্ধ রাতে স্পর্শ করত মেয়েটিকে
দূর সম্পর্কের আত্নীয় আশ্রিতা মেয়েটির  গর্ভে তারই সন্তান
সমাজের চোখে সে এখন কূলটা
চরিত্র হনন করে দূর দূর করে তাড়িয়ে দিল ধর্ষক
বললো ওর বিয়েতে সব খরচ বহন করবে সে  ৷
জীবনে কঠিন পরীক্ষার দারস্ত মেয়েটি
মনের আগুন এখন চোখ ঠিকরে শুধুই আগুনের লেলিহান
খবরের পাতায় সব আর্তনাদ শিরোনাম হয় না
সব আকুতি সবার হৃদয়ে হানা দেয় না ৷
অসময়ে প্রচন্ড প্রসব বেদনায় অদক্ষ ধাত্রী টেনে হিঁচড়ে
 মৃত সন্তান বের করলো জঠর থেকে
জরায়ুমুখে সেলাই, মূত্রনালীও ক্ষতিগ্রস্ত মেয়েটির
উন্মাতাল ওর চাহনি , চার্দিকে শূন্যদৃষ্টি
বুকে ঝর, উল্টে যায় বাঁচার সব স্বপ্ন
উল্টো রথে ঘোরে স্বপ্নের চাকা
মেয়েটির বিয়ে! বেঁচে থাকার জন্য বাকি জীবনের
সামান্য দাবি এখন ওর নেই কারো কাছে ৷
এমন দুর্দশায় মেয়েটি শোনে সেই ধর্ষক
গলা ফাটিয়ে দিচ্ছে ভাষন ধর্ষনের বিরুদ্ধে
আক্ষেপ মেয়েটির — মেয়ে  হয়ে জন্ম নেয়াটাই ওর চরম দূর্ভাগ্য !!
 মানুষ যদি সমাজ তৈরি করে, তাহলে সমাজের এই কি বিচার ?

নূরুন্নাহার বেগম:গাইবান্ধা জেলাধীন সুন্দরগঞ্জ থানায় এই কবির জন্মস্থান ৷ বর্তমানে রংপুর শহরে বসবাস ৷ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৯৭৪ –৮০ সাল পর্যন্ত প্রাণীবিদ্যা বিভাগে অধ্যয়ন করে বি,এস- সি( সম্মান ), এম,এস-সি ডিগ্রী অর্জন করেন। মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের অধীন জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা হিসেবে অবসর গ্রহণ করেন। ছাত্রজীবন থেকেই লেখালেখি করেন ৷ অবসর জীবনে ছড়া,কবিতা, প্রবন্ধ ,ছোট গল্প লেখেন ৷ প্রকাশিত একক গ্রন্থ দুটি। তবে যৌথভাবে তেত্রিশটির বেশি কবিতার বই প্রকাশিত হয়েছে তার।

ওমেন্স নিউজ সাহিত্য/