বইমেলার বিস্তারিত সময়সূচি

ছবি-সংগৃহীত

নিজস্ব প্রতিবেদক

অবশেষে শুরু হয়েছে বাঙালির প্রানের একুশে বইমেলা। মঙ্গলবার বিকেলে (১৫ ফেব্রুয়ারি) গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে রাজধানীর বাংলা একাডেমির মেলা প্রাঙ্গণে সংযুক্ত হয়ে ভার্চ্যুয়ালি মেলার উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় তিনি মেলার সময়সীমা বাড়ানোর ইঙ্গিত দেন।

ফেব্রুয়ারি মাসের ১ তারিখ থেকে বইমেলা শুরু হওয়ার রীতি থাকলেও করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে এবার কাঙ্ক্ষিত অমর একুশে বইমেলা শুরু হলো ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে। চলতি মাসের ২৮ তারিখ পর্যন্ত মেলা চলার কথা রয়েছে। তবে প্রধানমন্ত্রী মেলার সময়কাল আগামী ১৭ মার্চ পর্যন্ত বাড়ানোর ইঙ্গিত দিয়েছেন।

এর মাত্র একদিন আগে করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলে অমর একুশে বইমেলার মেয়াদ আরও বাড়তে পারে বলে জানিয়েছিলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। অমর একুশে বইমেলা উপলক্ষে বাংলা একাডেমি আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

মেলার সময়সূচি-ছুটির দিন ছাড়া প্রতিদিন বেলা ২টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত এই বইমেলা খোলা থাকবে। তবে ছুটির দিনগুলোতে বইমেলা বেলা ১১টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত চলবে। এ ছাড়া, মহান একুশে ফেব্রুয়ারি মেলা সকাল ৮টা থেকে চলবে রাত ৯টা পর্যন্ত।রাত ৮টার পর নতুন করে কেউ মেলায় প্রবেশ করতে পারবেন না।

যেভাবে সাজানো হয়েছে বইমেলা
এবার মেলায় মোট ৫৩৪টি প্রতিষ্ঠানকে ৭৭৬ ইউনিট স্টল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে একাডেমি প্রাঙ্গণে ১০২টি প্রতিষ্ঠানের জন্য রয়েছে ১৪২টি স্টল। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ৪৩২টি প্রতিষ্ঠানকে দেওয়া হয়েছে ৬৩৪টি স্টল। প্যাভিলিয়ন রয়েছে ৩৫টি। উদ্যান অংশে পুরো মেলায় প্যাভিলিয়নগুলো ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া এবার উদ্যানের উন্মুক্ত মঞ্চের পূর্ব পাশে মেলার মূল প্রাঙ্গণে লিটল ম্যাগাজিনের জন্য জায়গা বরাদ্দ করা হয়েছে। তাদের ১২৭টি স্টল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।
শিশু চত্বর রয়েছে মেলার উদ্যান অংশে, তবে কোভিড পরিস্থিতির কারণে আলাদা করে এবার ‘শিশু প্রহর’ থাকছে না। প্রতিদিন বিকেল চারটায় মূল মঞ্চে থাকবে বিষয়ভিত্তিক সেমিনার। পরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

মেলায় কঠোর নিরাপত্তাব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর তদারকির পাশাপাশি পুরো মেলা চত্বর এবং সংলগ্ন পথগুলো সিসি ক্যামেরার আওতায় থাকবে।

ওমেন্স নিউজ ডেস্ক/