নিখোঁজের তিন দিন পর তিস্তায় মিললো গৃহবধূর মরদেহ

হাসানুজ্জামান হাসান, লালমনিরহাট

নিখোঁজের তিন দিন পর লালমনিরহাটের তিস্তা নদী থেকে ফরিদা বেগম (২৫) নামে এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২ জুন) দুপুরে সদর উপজেলার তিস্তা সড়ক সেতুর দেড়শ গজ পূর্বদিকে তিস্তা নদীর পারে ভাসমান অবস্থায় সেটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত ওই গৃহবধু লালমনিরহাট জেলার হারাটী ইউনিয়নের কিসামত চোঙ্গাদারা গ্রামের ছাত্তার আলীর মেয়ে এবং খুনিয়াগাছ ইউনিয়নের মৃত নবিয়ার খাড্ডার ছেলে দুলাল হোসেনের স্ত্রী। মৃতের বাবা ছাত্তার আলী মঙ্গলবার (৩১ মে) লালমনিরহাট সদর থানায় একটি নিখোঁজের সাধারন ডায়েরি করেন।

পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে তিস্তা সড়ক সেতুর পুর্ব দিকে ওই এলাকার লোকজন নদীর তীরে একটি মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেন। খবর পেয়ে লালমনিরহাট থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মরদেহের পরিচয় জানার চেষ্টা করেন। মৃতের বাবা ঘটনাস্থলে এসে মেয়ে ফরিদার মরদেহ শনাক্ত করেন। পরে থানা পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়।

মৃত ফরিদা বেগমের বাবা ছাত্তার আলী জানান, ৭ বছর পূর্বে পারিবারিকভাবে পাশবর্তী সদর উপজেলার খুনিয়াগাছ ইউনিয়নের মৃত নবিয়ার খাড্ডার ছেলে দুলাল হোসেনের সাথে ফরিদার বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের ঘরে দুইটি পুত্র সন্তানের জন্ম হয়। দুই সন্তান নিয়ে তার মেয়ের সংসার ভালই চলছিল।

মঙ্গলবার (৩১ মে) সকালে ফরিদার শ্বশুর বাড়ির পাশের লোকজনের মুখে জানতে পারেন তার মেয়েকে শারীরিক নির্যাতন করেছে তার শ্বশুর বাড়ির লোকজন। এরপর থেকে ফরিদাকে কোথাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। এ কথা শোনার পরপরই তিনি মেয়ের শ্বশুর বাড়িতে যান। সেখানে গিয়ে জানতে পারেন ওইদিন সকাল থেকে ফরিদাকে কোথাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

তবে মৃতের মা মনোয়ারা বেগম অভিযোগ করে বলেন, বিয়ের পর থেকে জামাতা দুলাল কারণে-অকারণে ফরিদার ওপর অমানুষিক নির্যাতন করতো, কয়েকবার হত্যারও চেষ্টা করেছিল। এবার সে মেয়েকে হত্যা করে লাশ তিস্তা নদীতে ফেলে দিয়েছে।

এ বিষয়ে লালমনিরহাট সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহা আলম বলেন, গৃহবধূ ফরিদাকে হত্যা করে নদীতে ফেলে দেওয়া হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। অথবা এটি আত্মহত্যাও হতে পারে। তবে ময়না তদন্তের রিপোর্ট পাওয়া গেলে বিস্তরিত জানা যাবে।

এদিকে, নদীতে নিহত ফরিদা বেগমের মরদেহ উদ্ধারের পর তার শ্বশুর বাড়ির লোকজন বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছে।

ওমেন্স নিউজ ডেস্ক/