আজ পালিত হচ্ছে বিশ্ব পর্যটন দিবস

আজ ২৭ সেপ্টেম্বর, বিশ্ব পর্যটন দিবস। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মত বাংলাদেশেও নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে সাড়ম্বরে পালিত হচ্ছে এই দিনটি।

পর্যটনের শিল্পের অর্থনৈতিক, সাংস্কৃতিক ও সামাজিক অবদান ও গুরুত্ব সম্পর্কে জনসচেতনা সুদৃঢ় করার লক্ষ্য নিয়ে ১৯৭৯ সালে ২৭ সেপ্টেম্বর বিশ্ব পর্যটন দিবস হিসাবে পালনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদ। এ সিদ্ধান্ত নেয়ার পরের বছরই অর্থাৎ ১৯৮০ সালে জাতিসংঘের বিশ্ব পর্যটন সংস্থার (ইউএনডব্লিউটিও) উদ্যোগে বিশ্বজুড়ে পালিত হয় দিবসটি। এরপর থেকে নিয়মিত গুরুত্বের সঙ্গে বিশ্বজুড়ে পালিত হয়ে আসছে দিবসটি।

দিবসটি পালনে প্রতিবছরই থাকে একটি প্রতিপাদ্য বিষয়। এবছর দিবসটির প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে —‘পর্যটনে নতুন ভাবনা’।

প্রতিবছরের মতো এবারও বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশন ও বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডসহ বিভিন্ন পর্যটন সংস্থা দিবসটি উপলক্ষে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার দেয়া বাণীতে বলেছেন, বাংলাদেশ বিপুল পর্যটন সম্ভাবনাময় একটি দেশ।  ‘নয়নাভিরাম প্রাকৃতিক সৌন্দর্য, সমৃদ্ধ ইতিহাস, বৈচিত্র্যপূর্ণ সংস্কৃতি আমাদের দেশকে পরিণত করেছে একটি বহুমাত্রিক আকর্ষণসমৃদ্ধ অনন্য পর্যটন গন্তব্যে।’

তিনি আরও বলেন-প্রধানমন্ত্রী বলেন, পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ম্যানগ্রোভ ফরেস্ট সুন্দরবন, পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজার, পার্বত্য চট্টগ্রামের অকৃত্রিম সৌন্দর্য, সিলেটের সবুজ অরণ্যসহ আরো অনেক প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি, বাংলাদেশের সমৃদ্ধ সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য, ঐতিহাসিক এবং প্রতœতাত্ত্বিক স্থানসমূহ এবং অতিথি পরায়ণ মানুষ শুধু দেশীয় নয়, বিদেশি পর্যটক ও দর্শনার্থীদের কাছেও সমান জনপ্রিয় এবং সমাদৃত।

বিশ্ব পর্যটন দিবস-২০২২ উপলক্ষে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৭টায় এক র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া সকাল ৮টায় বেসামরিক বিমান পরিবহণ ও পর্যটন মন্ত্রণালয় আয়োজিত আগারগাঁওস্থ পর্যটন ভবনের শৈলপ্রপাত মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা । এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী।

এদিকে বিশ্ব পর্যটন দিবসে গত বছরের মতো এবারও একটি বিশেষ সংখ্যা প্রকাশ করেছে জনপ্রিয় পোর্টাল ওমেন্স নিউজ২৪। ‘ভ্রমণ সংখ্যা’ নামের ওই বিশেষ সংখ্যাটি সাজানো হয়েছে দেশ বিদেশের উল্লেখযোগ্য স্থানে কবি-লেখকদের সফরের ওপর রচিত বিচিত্র ও মনোমুগ্ধকর সব ভ্রমণকাহিনী দিয়ে। ওমেন্স নিউজের এই বিশেষ সংখ্যাটি পাঠকদের  ভালো লাগবে বলেই আমাদের বিশ্বাস।

ওমেন্স নিউজ ডেস্ক/