বিবেক পালের কবিতা `বিজয়ের মাস’

বিবেক পাল

বিজয়ের মাস

বাতাসে বারুদের গন্ধ——-
সবুজ শ্যামলিমা বাংলার মাটি ভিজে
মুক্তিযোদ্ধাদের রক্ত প্লাবনে।

বাষট্টির চারাগাছ সত্তরে মহীরূহ
কলরব ওঠে হৃদয় পিঞ্জর হোতে—
ক্রুদ্ধ চক্ষু সময়ের চক্রান্তের বিরুদ্ধে।

মুক্তির আহ্বানে নিজেকে বিলিয়ে দিতে
প্রতি ঘরে ঘরে জন্ম নেয় মুক্তিযোদ্ধা,
তেজস্বিনী পদ্মা যমুনার মতো দুর্নিবার স্রোতে—

স্বপ্নের টুঁটি কাটে নির্বিকার পাক হানাদার দস্যু
স্বদেশ প্রেমের কাছে ; হেরে যায় সকল অত্যাচার,
শহীদের রক্তে স্নাত প্রভাতী রোদ্দুর  !

আকাঙ্ক্ষার বাহু উর্দ্ধে মেলে-
যুগে যুগে যৌবন দিয়েছে জীবন বলিদান,
মুক্তির বেদীমূলে——-

মায়ের কোল খালি করে
প্রেয়সীর চোখের জলের ভেজা পথে,
শহীদের আত্ম-বলিদানে ; পেয়েছি মোর স্বাধীনতা !

ফুল মালা চন্দনে নয় শুধু উদযাপন
'যখন জীবনের অধিকার গানের মতো তন্ময়তা
যখন স্বপ্নের স্বাদ আদিগন্ত পূর্ণিমার রাত ।'

তখন পৃথিবীর গর্বিত সন্তানের কথা ভেবে
নির্বাক অরুন্ধতী স্বাতীদের মতন
আগলে রাখবো তোমায় ; হে স্বাধীনতা।

শপথের মুষ্টিবদ্ধ হাত—-উদ্বেলিত
হৃদয়ে হৃদয়ে হউক উদযাপন
স্বাধীনতা——–

কবি পরিচিতি: বিবেক পাল ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বাসিন্দা। থাকেন দার্জিলিং জেলার শিলিগুড়িতে। কবিতার সঙ্গে সখ্যতা তার শৈশব থেকে। বলতে গেলে কবিতা লেখা ও পড়া তার একমাত্র নেশা। তবে প্রচারবিমুখ এই কবি খুব বেশি পত্রিকায় লেখা দেন না। যদিও স্থানীয় কয়েকটি লিটলম্যাগে তার বেশ কিছু কবিতা ছাপা হয়েছে। পেশা জীবনে তিনি একজন ব্যবসায়ী।

ওমেন্স নিউজ সাহিত্য/