ঈহিতা জলিলের দু’টি কবিতা

ঈহিতা জলিল

আত্মার কান্না

আত্মা আমার বেঁচে-ই দিলাম
কানাকড়ির দামে!!
আমার কথা হারিয়ে গেছে
নোনা জলের ঘামে।
দৃষ্টি আমার শূন্য আজ
কৃষ্টির নামে।
শরীর আমার অবশ আজ
সন্তানের নামে।
জঠর আমার কাঁদছে শুধু
মা মা ডেকে—
ছেলে আমার কোথায় গেলো
এই আসছি বলে!
ঢাকের তালে হৃদয় দোলে
শাঁখের সুরে সুরে
আত্মা আমার কড়ির দামে
নিলামে দিলাম তুলে।

লাল নীল কাব্য

একসময় লাল রঙ দেখলেই
আমার কেমন কেমন লাগতো
তবু
প্রথম প্রেমের প্রথম কথা ছিলো
"লাল টুকটুকে বউ হবে"?
উত্তরে বলেছিলাম,
একদম না, লাল তো রাগের রঙ!!  
আমি "নীল টুকটুকে বউ" হবো।
নীল হলো ভালোবাসার রঙ।
তখনো কী জানতাম
নীল ভালোবাসার সাথে সাথে বেদনারও রঙ!
আর লাল রাগের সাথে সাথে ভালোবাসারও রঙ!
বেদনার নীল যখন রাগের লাল হয়ে জ্বলে উঠলো তখনই ভালোবাসার লাল হয়ে এসেছিলো একটুকরো মেঘ কাব্য।
কত রকম নীল চাই বলো!?
কত রকম লাল চাই বলো!?

পরিচিতি: ঈহিতা জলিল খেয়ালী কবি।ছদ্মনাম – ভানুমতী। কর্মরত আছেন জাতীয় বার্তা সংস্থা বাসস-এ, জ্যেষ্ঠ সহ-সম্পাদক হিসাবে।

ওমেন্স নিউজ/